প্রশ্নোত্তর-ফাতাওয়াসালাত-নামায

নামাযে অশুদ্ধ কুরআন পাঠের বিধান

প্রশ্ন: আসসালামু আলাইকুম। অশুদ্ধ কুরআন পাঠকারীর নামাযের বিধান কী? শরয়ী উত্তর জানালে উপকৃত হবো।

উত্তর: ওয়া আলাইকুমুস সালাম ওয়া রহমাতুল্লাহ।

অর্থ বিকৃত হয়ে যায়, এমন ভুল সূরা ফাতেহাতে করলে নামায নষ্ট হয়ে যাবে। সূরা ফাতিহার পরের কেরাতে এ ধরণের ভুল হলে নামায নষ্ট হবে না। কেননা বিশুদ্ধ মতে সূরা ফাতেহা নামাযের রোকন, আর ফাতিহার পরে কিরাত পরা সুন্নাহ। তবে ভুলে ভুল পড়লে সাহু সিজদার মাধ্যমে নামায সহীহ হয়ে যাবে ইনশা আল্লাহ। আর যদি ইচ্ছাকৃতভাবে সূরা ফাতেহাতে ভুল পড়ে তাহলে কোন অবস্থাতেই নামায হবে না। পক্ষান্তরে যদি সাধারণ ভুল-যার দ্বারা অর্থ একেবারে পাল্টে যায় না, তাতে নামায নষ্ট হবে না। নামাযের জন্য সম্পূর্ণ কুরআনের বিশুদ্ধ পাঠ জরুরী নয়। সূরা ফাতিহা বিশুদ্ধভাবে পড়তে পারলেই নামায সহীহ হয়ে যাবে। তবে ভুল পাঠকারী ব্যক্তির ইমামতি করবেন না। কারণ এতে ইমাম-মোক্তাদি উভয়ের নামাযই নষ্ট হয়ে যাবে।
——————————————–
উত্তর প্রদানে: মুফতি যাকারিয়্যা মাহমূদ মাদানী
বি এ, অনার্স, এম এ, এমফিল: মদীনা বিশ্ববিদ্যালয়, সৌদি আরব।

আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button
Close